ঢাকা, রবিবার ১৬ই জুন ২০১৯ , বাংলা - 

মন্দিরে ধ্যানে বসলেন নরেন্দ্র মোদী

প্রতিবেশি ডেস্ক।। ঢাকাপ্রেস২৪.কম

শনিবার ১৮ই মে ২০১৯ সন্ধ্যা ০৬:৪৮:০২

লোকসভা নির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণার পর কেটে গিয়েছে প্রায় দু’মাস।  সেই থেকে বিশ্রাম নেই। বাকি সমস্ত রাজনৈতিক দলের মতো সারা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত চষে বেড়িয়েছেন এনডিএ শিবিরের তারকা জুটি অমিত শাহ এবং নরেন্দ্র মোদীও। এখনও সপ্তম তথা শেষ দফার ভোটগ্রহণ বাকি থাকলেও শেষ হয়েছে প্রচার। অর্থাৎ, প্রচারের কাজে দাঁড়ি পড়ে গিয়েছে। আপাতত অপেক্ষা ২৩ মে-র। ওই দিন জানা যাবে, দেশের জনগণ কী রায় দিলেন?

তাই আজকের দিনটা প্রার্থনার জন্যই বেছে নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। দু’জনের গন্তব্য অবশ্য ভিন্ন ছিল। শনিবার সকাল সকালই গুজরাতের সোমনাথ মন্দিরে গিয়ে পুজো ও প্রার্থনা করলেন অমিত। আর নরেন্দ্র মোদী দু’দিনের সফরে এ দিন সকালেই পৌঁছে যান উত্তরাখণ্ডে। পুজো দেন কেদারনাথ মন্দিরে।

পাহাড়ি পোশাক পরে প্রায় আধ ঘণ্টা কেদারনাথ মন্দিরে ছিলেন মোদী। মন্দির চত্বর প্রদক্ষিণের পাশাপাশি মন্দিরে ঢুকে পুজোও দেন, ঘুরে দেখেন কেদারনাথ মন্দির প্রাঙ্গনে চলতে থাকা উন্নয়নের কাজও। জানা গিয়েছে, এখানে দুপুরের পরে ধ্যানে বসেন তিনি। শুধু কেদারনাথ নয়, আগামী কাল বদ্রীনাথ মন্দিরেও যাবেন নরেন্দ্র মোদী।

সরকারি কাজেই মোদী কেদারনাথ মন্দিরে যাবেন, প্রধানমন্ত্রীর অফিস থেকে এমনটাই জানানো হয়েছিল নির্বাচন কমিশনকে। কারণ, এখনও চালু রয়েছে নির্বাচনী আচরণবিধি। আর সে কারমেই তাঁকে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছে কমিশন। আগামী কাল নরেন্দ্র মোদীর কেন্দ্র বারাণসীতে ভোট। নির্বাচনী আচরণবিধির কথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে জানিয়ে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন, এমনটাই জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা পিটিআই-ও।

গত নভেম্বরেও দিওয়ালির সময় কেদারনাথ মন্দির দর্শনে গিয়েছিলেন মোদী। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১১ হাজার ৭৫৫ ফুট উঁচুতে অবস্থিত এই শৈব তীর্থে নিয়মিতই যান তিনি।