ঢাকা, রবিবার ১৮ই আগস্ট ২০১৯ , বাংলা - 

২৪ সালের পরও রাশিয়ানরা চায় পুতিনকে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।ঢাকাপ্রেস২৪.কম

বুধবার ৩১শে জুলাই ২০১৯ দুপুর ১২:৫৭:১৯

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মেয়াদ শেষ হবে আগামী ২০২৪ সালে। তবে নেতা হিসেবে এখনো রাশিয়ানদের প্রথম পছন্দ তিনি। রাশিয়ার অধিকাংশ জনগণ রাষ্ট্রের প্রধান হিসেবে চান পুতিনকেই।

ইউক্রেন ভিত্তিক ইউএনআইএএন নামে এক সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে এমনটাই। তাদের মতে, ভবিষ্যতে রাষ্ট্র প্রধান হিসেবে রাশিয়ানরা কাকে চায়; এমন এক জরিপ চালায় রাশিয়ার এনজিও লেভাদা সেন্টার। আর সে জরিপেই উঠে এসেছে ভ্লাদিমির পুতিনের জনপ্রিয়তা।

‘২০২৪ সালের পর আপনি কি পুতিনকে প্রেসিডেন্ট চান?’, এমন প্রশ্নের জবাবে দেশটির ৫৪ শতাংশ জনগণ ‘হ্যাঁ’ বলেছেন পুতিনের পক্ষে। ৩৮ শতাংশ জবাব দিয়েছে ‘না’। বাকি ৮ শতাংশ বিরত রেখেছে নিজেদের মতামত দেওয়া থেকে।

জরিপের এমন ফলাফলের হিসেব ধরে যদি আগামী রোববার রাশিয়ায় কোনো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়, তবে সে নির্বাচনে দেশটির ৫৪ শতাংশ মানুষ ভোট দেবে পুতিনকে। ৪ শতাংশ ভোট পাবেন এলডিপিআর নেতা ভ্লাদিমির ঝিরিনোভস্কি এবং কমিউনিস্ট নেতা পাভেল গ্রাদিনিন। রাশিয়ার বিরোধী দলীয় নেতার ভাগ্যে জুটতে পারে মাত্র ১ শতাংশ ভোট। আর ৩১ শতাংশ জনগণ কোনো বাক্সে ভোট দেবে তা জানায়নি। যদিও আপাতত কোনো ভোটগ্রহণ নেই রাশিয়ায়।

দেশটির গ্রাম ও শহরের জনগণের ওপর জরিপটি চালানো হয় ১৮ থেকে ২৪ জুলাই পযর্ন্ত। মোট ১৬০৫ জনের মুখোমুখি সাক্ষাৎকার নেওয়া হয় নির্বাচন বিষয়ক এ জরিপে, যাদের বয়স ১৮ থেকে ৫০ বছর। আর তাদের অধিকাংশেরই প্র্রথম পছন্দ পুতিন।

২০০০-২০০৮ পযর্ন্ত টানা রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন পুতিন। এরপর ২০০৪-২০১২ পযর্ন্ত প্রেসিডেন্ট ছিলেন দিমিত্রি মেদভেদেব। তবে ক্ষমতা ছাড়লেও রাশিয়ার রাজদণ্ড ছিল পুতিনের হাতে। মেদভেদেবের সময়ে প্রেসিডেন্টের মেয়াদ চার থেকে ছয় বছরে উত্তীর্ণ করা হয়।

পুতিন ২০১২ সালে পুনরায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। সেই মেয়াদ শেষ হয় ২০১৮ সালে। এরপর চতুর্থ মেয়াদে পুনরায় ক্ষমতা গ্রহণ করেন তিনি। যার মেয়াদ শেষ হবে ২০২৪ সালে।